Sunday , January 24 2021

মা-বাবার অনুপস্থিতিতে শিশুকে খাইয়ে ঘুম পাড়াল বেড়াল, তুমুল ভাইরাল কান্ড!!!

আমা’দের চারপাশে প্রতিদিনই নানান ঘটনা ঘটে। অনেক সময় বেশ কিছু এমন ঘটনা ঘটে যা হয়তো আম’রা বিশ্বাসই করতে পারি না৷

সেই দৃশ্যের ছবি বা ভিডিও ক্যামেরায় ধারন করে আম’রা সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট করি।ছবি বা ভিডিও গুলি ভাইরাল হয়ে তা পৌঁছে যায় নেটপাড়ার প্রতিটি কোনায়।

অনেকেই বেড়াল পোষেন, কিন্তু বলা বাহুল্য বেড়ালের দুষ্টুমিতে কম বেশি অতিষ্ঠ সকলেই৷ তবে এবার নেট দুনিয়ায় যে ছবিগুলি ভাইরাল হয়েছে তাতে বেড়ালের দুষ্টুমি নয় নতুন রূপ ধ’রা পড়েছে।

ভাইরাল ছবিতে একটি শিশুকে যত্ন নিতে দেখা যাচ্ছে এক মার্জারকে। ভাইরাল ছবিতে দেখা যাচ্ছে একটি ডোরাকা’টা বেড়ালকে।

অন্য ছবিগুলি দেখে মনে হচ্ছে সে শিশুটিকে ঘুম পাড়াচ্ছে। ছবি চারটি সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট হতেই তুমুল ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। মন্তব্য বাক্সে উপচে পড়েছে কমেন্ট।

অনেকেই এই মার্জারের প্রশংসায় যেমন পঞ্চমুখ তেমনই অনেকেই বিড়াল থেকে হওয়া নানা রোগ সম্পর্কে সচেতন করেছে।

তাদের মতে শিশুকে ও বিড়ালকে এভাবে কাছাকাছি রাখলে বিড়াল থেকে শিশুটির শরীরে রোগ দানা বাঁধতে পারে। সব মিলিয়ে এই মুহুর্তে নেট দুনিয়ায় দারুন চর্চায় এই মার্জার.

‘লজ্জা’নয় জানতে হবেঃ নারীর স্ত’ন ঝুলে যাওয়া’র কার’ণ ও সমাধান

শারী’রিক গঠন ফিট না থাকলে মন খারাপ হতেই পারে। নারীর ক্ষেত্রে এই মন খারাপের কারণ হতে পারে স্ত’ন ঝুলে যাওয়া নিয়ে।

অল্প বয়সেই অনেক নারীর স্ত’ন ঝুলে যাওয়ার সম’স্যায় পড়তে হয়। এর অনেকগুলো কারণও আছে। তবে কারণ ও সমাধান জানা থাকলে এর থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব।

স্ত’ন ঝুলে যাওয়ার কারণ: শরী’রের গঠনের তারতম্যের কারণে স্ত’ন ঝুলে যেতে পারে। শরীর মোটা থেকে চিকন বা চিকন থেকে মোটা হওয়ার কারণে স্ত’ন ঝুলে যেতে পারে।

অনেক সময় অতিরিক্ত ব্যয়ামও স্ত’ন ঝুলে যাওয়ার একটি কারণ। সন্তান জন্মদানের কারণে অর্থাৎ প্রসূতিকালীন স্ত’নের আকার বড় হয়ে যাওয়ার কারণে স্ত’ন ঝুলে যায়।

আবার স্ত’ন অতিরিক্ত বড় ও ভারী হওয়ার কারণেও ঝুলে যেতে পারে।বয়সের কারণে স্বাভাবিকভাবেই স্ত’ন ঝুলে যায়।

অপ্রতুল স্ত’ন-সার্পোটের কারণেও স্ত’ন ঝুলে যায়। ধূমপানের চামড়ার স্থিতিস্থাপকতা দু’র্বল করে দেয় যা স্ত’ন ঝুলে যেতে সাহায্য করে।

স্ত’ন যদি ঝুলে গিয়েই থাকে, তাহলে তাকে ফিট রাখার উপায়ও আছে। জেনে নিন কয়েকটি উপায়:সঠিক ব্রা ব্যবহার:

আপনি অবশ্যই এমন ব্রা পরুন যা আপনার স্ত’নকে সম্পুর্ন সাপোর্ট দেয়। লক্ষ রাখতে হবে আপনার ব্রা অবশ্যই আপনার সাথে সাবলীল ভাবে চলতে পারে-

অর্থাৎ চলার সময় আপনার ব্রা লেইস যেন কাঁধ থেকে খসে না পড়ে অথবা বন্ধনি অতিরিক্ত টাইট কিংবা অতিরিক্ত লুজ না হয়।

যখন ব্রা সাইজ নেবার জন্য মাপতে যাবেন, অবশ্যই খেয়াল রাখবেন আপনার পুরাতন ব্রা পরনে থাকতে হবে এবং সে অবস্থায় স্ত’নের ঠিক নিচে মাপ নিচ্ছেন।

এছাড়া কিছু ব্যায়ামও করতে পারেন-মেডিসিন বল স্ল্যাম: দু’হাতে একটা মেডিসিন বলকে ধরুন। মাথার ওপরে বলটা ধরে তুলুন।বল পুশ আপস: পুশ আপ পোজিশনে শোন।

তবে এবার মাটিতে হাত রাখার বদলে হাত দুটো একটা মেডিসিন বলের ওপরে রাখুন। এবার পুশ আপ করতে শুরু করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *